12 জুন 2024

কিশোর পিয়ার লিডার হিসেবে এনায়েতের পথচলা

কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শরনার্থী শিবিরে পা রাখা মাত্র এনায়েতের বেঁচে থাকার নতুন এক সংগ্রাম শুরু হয়। মাত্র ৯ বছর বয়সেই কঠিন বাস্তবতার মুখোমুখি হয় এনায়েত, প্রতিদিন তার পরিবারের রান্নার জন্য জ্বালানি কাঠ ও পানি সংগ্রহের কঠিন দায়িত্ব দেওয়া হয় তাকে। সময়ের সাথে সাথে দায়িত্ব বাড়তে থাকে এনায়েতের। অন্যান্য শরণার্থীর বাড়িতে বাড়িতে গ্যাস সিলিন্ডার, চালের…, শিক্ষার মাধ্যমে রূপান্তর, তিন বছর আগের কথা। একদিন এনায়েতকে রোহিঙ্গা শরনার্থী শিবিরে কাজ করতে দেখেন ইউনিসেফের কেসকর্মী সালাউদ্দিন। তখনই জীবনে পরিবর্তনের আশা দেখতে পেয়েছিলো এনায়েত। একদিন এনায়েতের বাড়িতে যান সালাউদ্দিন। এনায়েতকে বহুমুখী কেন্দ্রে পাঠানোর বিষয়ে তার বাবার সাথে আলোচনা করেন তিনি। এছাড়াও ভবিষ্যতের জন্য কারিগরি দক্ষতা এবং জীবন দক্ষতা শেখার জন্য কেন্দ্রের কিশোর…, পরিবর্তনের ঢেউ , Anayet walks through the refugee camp with case worker Salauddin. 03Anayet From bystander to changemaker, কেসকর্মী সালাউদ্দীনের সাথে শরনার্থী ক্যাম্পের মধ্য দিয়ে হাঁটছেন এনায়েত, UNICEF/UNI517321/Sujan Anayet and case worker Salauddin speak with a family during a home visit in the refugee camp. 04Anayet From bystander to changemaker, শরনার্থী শিবিরে বাড়ি পরিদর্শনের সময় একটি পরিবারের সাথে কথা বলছেন এনায়েত ও কেসকর্মী সালাউদ্দীন, UNICEF/UNI517314/Sujan Anayet walks through the refugee camp with case worker Salauddin. Anayet and case worker Salauddin speak with a family during a home visit in the refugee camp. বহুমুখীকেন্দ্রের কিশোর ক্লাবে যোগ দেয়ার অল্প কিছুদিনের মধ্যেই তার বাড়ির কাছেই শিশুনির্যাতন ও শিশুর প্রতি অবহেলার এক ঘটনার স্বাক্ষী হয় এনায়েত। তখনতার বয়স মাত্র ১৩বছর…
25 এপ্রিল 2024

কক্সবাজারে অপুষ্টির বিরুদ্ধে সফলভাবে লড়াই করে চলেছে কমিউনিটি ক্লিনিক

শাবনূরের বয়স মাত্র ২২ বছর। কিন্তু এরমধ্যেই তিনি মাতৃত্বের কঠিন সব চ্যালেঞ্জগুলোর মুখোমুখি হয়ে গেছেন। অল্প বয়সে বিয়ে হওয়া শাবনূরের এখন নুসাইফা নামের ১৫ মাস বয়সী একটি কন্যাশিশু আছে। জন্মের সময় নুসাইফার ওজন ভালো ছিল; এরপর ক্রমশই তার ওজন কমতে থাকে, ঘাবড়ে যান শাবনূর। “আমার বাচ্চার জ্বর হয়েছিল এবং তারপর থেকে সে ঠিকমতো খাচ্ছিল না”, শাবনূর বলেন। তিনি আরও…, অপুষ্টির মূল কারণগুলো মোকাবিলা, কমিউনিটি পর্যায়ে, শিশুদের জন্য পুষ্টিকর খাবার ও সঠিক যত্ন পদ্ধতি সম্পর্কে এখনও পর্যাপ্ত জ্ঞানের ঘাটতি রয়েছে। বিশেষ করে ছয় মাস পর্যন্ত কেবল বুকের দুধ খাওয়ানো, এরপর থেকে বুকের দুধের পাশাপাশি অন্যান্য পুষ্টিকর সম্পূরক খাবার খাওয়ানো এবং শিশুর পরিচর্যার ক্ষেত্রে পরিষ্কারপরিচ্ছন্নতা বজায় রাখা, এসব সম্পর্কে এখনও সবাই সচেতন নয়; যার ফলে শিশুদের মাঝে…
08 এপ্রিল 2024

কক্সবাজারে নিজের ভাগ্য নিজেরাই গড়ছেন নারীরা

“যখন আমার স্বামী মারা গেলেন [২০২০ সালের প্রথম দিকে], তখন আমাকে ও আমার পরিবারকে সহায়তা করতে কেউ এগিয়ে আসেনি,” কথাগুলো বলছিলেন কক্সবাজার জেলার টেকনাফে বসবাসরত ২৬ বছর বয়সী সাবিনা। ওই সময়ের অবস্থা তুলে ধরে তিনি বলেন, “কিছু দিন আমি শ্বশুরবাড়িতে ছিলাম। কিন্তু আমি তাদের বোঝা হতে চাইছিলাম না। তাই আমি আমার মেয়েকে নিয়ে আমার মা ও বোনের সঙ্গে থাকতে টেকনাফে…, সাবিনা তাঁর টিকে থাকার সংগ্রাম এবং টেইলারিং ব্যবসা শুরু করার গল্প বলেন। এই ব্যবসা তিনি তার বাসায় বসেই চালিয়ে যাচ্ছেন।, UNICEF Bangladesh/2023/Sujan Sabina shares her story of survival and opening her tailoring business, which she runs from her home., সাবিনা তাঁর টিকে থাকার সংগ্রাম এবং টেইলারিং ব্যবসা শুরু করার গল্প বলেন। এই ব্যবসা তিনি তার বাসায় বসেই চালিয়ে যাচ্ছেন।, UNICEF Bangladesh/2023/Sujan Sabina shares her story of survival and opening her tailoring business, which she runs from her home. Sabina shares her story of survival and opening her tailoring business, which she runs from her home., একটি উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ, প্রকল্পের কর্মীরা বাড়িতে গিয়ে আলোচনা করলে সাবিনা ক্যাশ প্লাস সম্পর্কে জানতে পারেন। তখন তিনি প্রকল্পে নাম লেখান এবং টেইলারিং বেছে নেন। এর কয়েক মাস পর তিনি একটি মাসব্যাপী প্রশিক্ষণে অংশ নেন, যা তার জীবনের মোড় বদলে দিয়েছে। বর্তমানে নিজের অবস্থান ব্যাখ্যা করে সাবিনা বলেন, “এখন আমি প্রতি মাসে চার হাজার থেকে ছয় হাজার টাকা আয় করি। উপার্জনের টাকা দিয়ে আমি…, সাবিনা তার মা, বোন আমিনা (১২) ও মেয়ে তানিশার (৩) সঙ্গে।, UNICEF Bangladesh/2023/Sujan Sabina and her neighbour Ayesha, another beneficiary of the project, work on orders from customers., সাবিনা ও তার প্রতিবেশী আয়েশা, সেও এই প্রকল্পের আরেক সুবিধাভোগী। দুজনে মিলে ক্রেতাদের দেওয়া ফরমাশ অনুযায়ী কাজ করছেন।, UNICEF Bangladesh/2023/Sujan Sabina with her mother, sister Amina,12, and daughter Tanisha, 3. Sabina and her neighbour Ayesha, another beneficiary of the project, work on orders from customers. আর কোন অর্থনৈতিক সংকট নেই সাবিনার। এখন কেবল নতুন নতুন প্রত্যাশা ও বিজয়ের গল্প  তার মুখে। এখন তিনি পরিবারের সদস্যদের জন্য স্বাস্থ্যকর খাবারের বন্দোবস্ত…
22 ফেব্রুয়ারি 2024

শিশুশ্রম থেকে শিক্ষার আলো

২০১৭ সাল। মায়ানমার থেকে বাবা-মা ও ভাইবোনদের সাথে নূর যখন পালিয়ে আসে, তখন তার বয়স মাত্র ৭ বছর। সেই থেকেই কক্সবাজারের বিস্তৃত শরণার্থী শিবিরে বসবাস তার। যেখানে বাস্তুচ্যূতিই নিয়মিত বাস্তবতা, সেখানে শিশুশ্রমও অনেক রোহিঙ্গা পরিবারের জন্য অতিসাধারণ বিষয়। রোহিঙ্গা সম্প্রদায়ের শিশুদের প্রতি সহিংসতার বিষয়টি লোকচক্ষুর বাইরে রাখা হলেও সেখানে এটি খুবই সাধারণ…, বহুমুখী কেন্দ্রে কেস ওয়ার্কারের সাথে কথা বলছে নূর।, UNICEF Bangladesh/2023/Sujan Nur speaks with case workers at the multi-purpose centre., বহুমুখী কেন্দ্রে কেস ওয়ার্কারের সাথে কথা বলছে নূর।, UNICEF Bangladesh/2023/Sujan Nur speaks with case workers at the multi-purpose centre. Nur speaks with case workers at the multi-purpose centre. “সালাউদ্দিন যখন বাড়িতে এসে আমার বাবা মায়ের সাথে কথা বললেন, তারপর থেকে আমার বাবা মারধোর করা বন্ধ করে দেন, এখন তিনি আমার খুবই যত্ন করেন”, হাসি মাখা মুখে কথাগুলো বলছিলো নূর। “যখন আমার বাবা জানতে পারলেন যে,…
22 নভেম্বর 2023

বিশ্ব শিশু দিবস: জলবায়ু সংকট নিয়ে কাজ করতে তরুণ শিল্পীদের জন্য অনুপ্রেরণা

বিশ্বজুড়ে যখন বিশ্ব শিশু দিবস উপলক্ষে নানা কর্মসূচি পালিত হচ্ছে, সেসময় ইউনিসেফ তার অংশীজনদের নিয়ে কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরের শিশুদের জন্য দুই দিনব্যাপী চারু ও কারুকলা বিষয়ক একটি কর্মশালার আয়োজন করে। তরুণ প্রজন্মের মধ্যে সচেতনতা তৈরি ও তাদের ক্ষমতায়নের পথে এগিয়ে নিতে এ আয়োজন করা হয়। কর্মশালাটি পরিচালিত হয় ৯ থেকে ১৫ বছরের শিশুদের জন্য। এর…, ক্যানভাসে উদ্বেগের প্রকাশ, কর্মশালার প্রথম দিনে জলবায়ু সংকটের নানা দিক সৃজনশীলতার সঙ্গে তুলে আনার বিষয়ে ধারণা দেওয়া হয়। এই সেশনে অংশগ্রহণকারী শিশুদেরকে, জলবায়ু পরিবর্তনের সঙ্গে শিশু হিসেবে তাদের অধিকারগুলো কীভাবে সম্পৃক্ত সে বিষয়ে আলোচনা করা হয়। এক্ষেত্রে অংশগ্রহণমূলক আলোচনা ও অনুশীলন পদ্ধতি অনুসরণ করা হয়। এর ফলে জটিল বিষয়টি শিশুদের বোধগম্য হয়ে ওঠে এবং তারা নিজেদের…, চিত্র থেকে সমাধান, দ্বিতীয় দিনে শিশুরা তাদের চিত্রকর্মে রঙ দিয়ে সেগুলোকে জীবন্ত করে তোলে। দরদ দিয়ে রঙ করা শিশু শিল্পীদের   স্কেচগুলো কর্মশালাটিকে রঙিন এক প্রদর্শনীস্থলে রূপান্তরিত করে। তাদের প্রতিটি রঙের প্রলেপে পরিবেশ রক্ষায় পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান ফুটে ওঠে। 15-year-old Towhid UNICEF Bangladesh/2023/Sujan “আমি দু’টি পৃথিবী এঁকেছি। একটিতে তুলে ধরা হয়েছে, আমরা গাছ…, পরিবর্তনের বীজ বপণ, কর্মশালায় অংশগ্রহণকারী শিশুরা তাদের শৈল্পিক দক্ষতার প্রকাশ ঘটানোর উপায় সম্পর্কেই শুধু জেনেছে তা নয়; বরং তারা সম্মিলিতভাবে আমাদের এই ধরণী সুরক্ষায় কার কী করণীয় সে বিষয়ে স্পষ্ট ধারণা পেয়েছে। পরিবেশের জন্য কাজ করার মানসিকতা তৈরির মাধ্যমে এই কর্মশালায় একটি প্রজন্মের প্রতিনিধিদের মধ্যে এ বিষয়ক বীজ বপণ করা হল। এর ফলে তারা বুঝতে শিখবে যে, জলবায়ু সংকট…
21 আগস্ট 2023

প্রতিকূলতার মধ্যেও রোহিঙ্গা শরণার্থীরা সৃজনশীল হয়ে ওঠে

একটি মেয়ে একটি স্কুল ব্যাগ তুলে নিয়ে একটি ছোট ঘরের চারপাশে ঘুরতে শুরু করে। সে দেয়ালে অন্য শিশুদের আঁকা কিছু ছবির দিকে তাকায়। ঘরের কোণের ঘড়িটির টিক টিক শব্দের সাথে সাথে যেন তার উদ্বিগ্নতা ও হতাশাও ক্রমশ বাড়ছে । কিন্তু সে এই ঘরের বাইরে যেতে পারবে না। এমন সময় একজন বর্ণনাকারীর কণ্ঠে বিষয়টি পরিষ্কার হয়ে ওঠে - সোফা একজন মেয়ে, তাই তার বাবা-মা তাকে…, কর্মশালায় অংশগ্রহণকারী রোহিঙ্গা শিশুরা গল্পের চিত্রনাট্য তৈরি, ক্যামেরা চালানো এবং ভিডিও ফুটেজ সম্পাদনা করাসহ চলচ্চিত্র নির্মাণের মৌলিক বিষয়গুলো শিখেছে।, UNICEF/UNI407819/The One Minutes Jr. Rohingya children participating in the workshop learned basics of filmmaking, including scripting a story, operating a camera and editing footage., কর্মশালায় অংশগ্রহণকারী রোহিঙ্গা শিশুরা গল্পের চিত্রনাট্য তৈরি, ক্যামেরা চালানো এবং ভিডিও ফুটেজ সম্পাদনা করাসহ চলচ্চিত্র নির্মাণের মৌলিক বিষয়গুলো শিখেছে।, UNICEF/UNI407820/The One Minutes Jr. Rohingya children participating in the workshop learned basics of filmmaking, including scripting a story, operating a camera and editing footage. Rohingya children participating in the workshop learned basics of filmmaking, including scripting a story, operating a camera and editing footage. ১ থেকে ১৩ বছর বয়সী…
20 আগস্ট 2023

রোহিঙ্গা সংকটের ছয় বছর

২০১৭, আগস্টের শেষ দিকে মিয়ানমারে সহিংসতা ছড়িয়ে পড়লে লাখ লাখ আতঙ্কিত রোহিঙ্গা নিরাপদ আশ্রয়ের খোঁজে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে বাংলাদেশে চলে আসে। নিজেদের ঘরবাড়ি, সহায়-সম্বল, লোকালয় পেছনে ফেলে অনেকে মাছ ধরার নৌকায় গাদাগাদি করে উঠে বাংলাদেশে চলে আসে। বঙ্গোপসাগরের উত্তাল ঢেউ তখন তাদের কাছে কোনো বিষয় হয়ে দাঁড়ায়নি। Rohingya children and families Rohingya children and…, ২০১৮, ২০১৭ সালের আগস্ট থেকে শুরু করে জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহ নাগাদ আনুমানিক সাত লাখ ২০ হাজার মানুষ বাংলাদেশে চলে আসে । বিপুল সংখ্যক এই মানুষ আসার কারণে  মানবিক সহায়তার জরুরি প্রয়োজন দেখা দেয় । খালি হাতে আসা রোহিঙ্গা পরিবারগুলোর টিকে থাকার উপায় ছিল সহায়তা হিসেবে পাওয়া পানি, খাবার ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী। দেশান্তরী মানুষের এই ঢলে রোগের প্রাদুর্ভাবের…, কক্সবাজারে ইউনিসেফ-সমর্থিত শিশুবান্ধব স্থানে ছবি-বিনিময়ের অংশ হিসেবে রোহিঙ্গা শিশুরা দেয়ালে আঁকছে।, UNICEF/UN0213498/Sokol Rohingya children learnt at Learning Centre., রোহিঙ্গা শরণার্থী শিশুরা কক্সবাজারের বালুখালী ক্যাম্পের একটি শিশুবান্ধব জায়গায় খেলছে।, UNICEF/UN0215019/Sokol Rohingya children painted on the wall. Bangladesh Rohingya children learnt at Learning Centre., ২০১৯, জরুরি পরিস্থিতিতে শিশুরা তাদের প্রিয়জন ও ঘর-বাড়ি হারায়। তারা বিশুদ্ধ পানি, স্বাস্থ্য সেবা ও খাবার পায় না। তারা  নিরাপত্তার অভাবে ভোগে; প্রতিদিন যেন তাদের জন্য এক নতুন যুদ্ধ । শিক্ষার সুযোগ থেকে বঞ্চিত হওয়ায় তাদের ভবিষ্যৎ নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দেয়। শরণার্থী সংকটের শুরু থেকে নতুন আসা লাখ লাখ শিশুকে স্কুলে ভর্তি করাটা ছিল ইউনিসেফ এবং শিক্ষা ক্ষেত্রে এর…, কক্সবাজার জেলার উখিয়ার কোর্ট বাজারের একটি দোকানে একটি মেয়ে প্রশিক্ষণ নিচ্ছে।, UNICEF/UN0284148/LeMoyne Rohingya adolescent boys attending the vocational training programme. Bangladesh, কক্সবাজার জেলার কোর্ট বাজারের একটি দোকানে কিশোর ছেলেরা কাঠের নকশার কাজ শিখছে।, UNICEF/UN0284149/LeMoyne Rohingya adolescent girls attending vocational training programme. Bangladesh Rohingya adolescent boys attending the vocational training programme. Bangladesh, ২০২০, অনেক রোহিঙ্গা শরণার্থী বাস করত পাতলা বাঁশ ও ত্রিপল দিয়ে তৈরি করা ছাউনির ভেতরে , যেখানে তাদের প্রতিটা দিন কাটত বিপদের আশংকায়। সেখানে সংক্রামক ব্যাধি ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকিও ছিল অনেক বেশি। কোভিড-১৯ ছড়িয়ে পড়ায় বিশ্বজুড়ে লোকজন পরিবারগুলোকে নিরাপদ রাখতে অনেক পূর্ব সতর্কতা মেনে চলা শুরু করে, যার মধ্যে শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে চলার বিষয়ও ছিল। কিন্তু…, ২০২১, আগে থেকেই বিভিন্ন সমস্যাকবলিত  রোহিঙ্গা শিশুদের শিক্ষা পরিস্থিতিকে আরও জটিল করে তোলে কোভিড-১৯। মিয়ানমারে থাকার সময় অনেক রোহিঙ্গা শিশু স্কুলে যেতে পারত না। সে কারণে আগে থেকেই  এই শিশুদের শিক্ষার অবস্থা ছিল বেশ শোচনীয়  । দেশজুড়ে কোভিড-১৯ সংক্রমণ বাড়তে থাকায় রোহিঙ্গা শিবিরের শিক্ষা কেন্দ্রগুলো তখনও বন্ধ, সে সময় ইউনিসেফ ঘরেই শিশুদের শিক্ষা চালিয়ে…, ২০২২, এ বছর মে মাসে রোহিঙ্গাদের স্বদেশ মিয়ানমারের জাতীয় পাঠ্যক্রমে লেখাপড়ার জন্য ১০ হাজার তম শিশু নাম লেখায়। এর মধ্য দিয়ে রোহিঙ্গা শিশুদের শিক্ষার ক্ষেত্রে বড় ধরনের অগ্রগতি দেখা যায় যা তাদের মাঝে নতুন আশার সঞ্চার করে। । ইউনিসেফ ও এর অংশীদারেরা ২০২১ সালের শেষ দিকে পাইলট প্রকল্প হিসেবে রোহিঙ্গা শিশুদের জন্য মিয়ানমারের পাঠ্যক্রমে লেখাপড়া চালু করে। এটা ছিল…, ২০২৩, রোহিঙ্গা সংকট নতুন বছরে পদার্পণ করার সাথে সাথে, শরণার্থী শিশুরা চেনা-আচেনা বিভিন্ন  চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে থাকে । মার্চে আগুন লেগে হাজার হাজার শরণার্থী গৃহহীন হয়ে পড়ে। দেশ থেকে পালিয়ে এসে আশ্রয় নেয়া প্রায় ১২ হাজার শরণার্থীরা আবারও  গৃহহীন হয়ে পড়ে। In March, thousands of refugees lost their homes as a fire raged. UN0798767.JPG UNICEF/UN0798767/…
20 জুন 2023

"এখন আমি পা দিয়ে লিখি, আমার চেনাজানা আর কেউ এটা পারে না"

রোহিঙ্গা শিবিরে গত ৩১ মে প্রথমবারের মতো বর্ষ সমাপনী পরীক্ষা দেয় ১৪ বছর বয়সী এহসান। তবে তাঁর এই পরীক্ষা অন্য সহপাঠীদের মতো ছিল না। এহসান হাতের বদলে ডান পা দিয়ে কলম ধরে লিখে পুরো পরীক্ষা দেয়। এক বছর আগে একটি মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় দুই হাত হারায় এহসান। এক সন্ধ্যায় বন্ধুদের সঙ্গে ফুটবল খেলার সময় বিদ্যুতের তার এসে তাদের ওপর পড়ে। এহসান ও তার দুই বন্ধু…, শেখার অদম্য ইচ্ছা, আশ্রয় শিবিরে অবস্থানকালে এহসান নিজের পড়াশোনা চালিয়ে যাওয়ার জন্য সাধ্যমতো চেষ্টা করে। সে একটি মাদ্রাসায় ভর্তি হয়। একজন প্রাইভেট শিক্ষকের কাছেও পড়তে থাকে। ইউনিসেফ যখন গত বছর শরণার্থী শিবিরে মিয়ানমারের পাঠ্যক্রম অনুযায়ী পড়াশোনা চালু করে, তখন এহসান ইউনিসেফ পরিচালিত একটি শিক্ষাকেন্দ্রেও ভর্তি হয়। সেই স্মৃতি মনে করে এহসান বলে, “নতুন পাঠ্যক্রমে ক্লাস…, স্কুলে ফেরা, এহসান বলে, “আমি আবার যখন হাঁটতে শুরু করলাম, এর সাথে সাথেই আমি জানতাম আমি আবার আমার শিক্ষাকেন্দ্রে ফিরে যেতে চাই। আমার শিক্ষক আমাকে দেখতে এলেন এবং হেঁটে শিক্ষা কেন্দ্রে যেতে আমাকে সহযোগিতা করলেন। এমনকি কীভাবে পা দিয়ে লিখতে হয়, সেটা শিখতে তিনি আমাকে সহযোগিতা করলেন। পা দিয়ে লিখতে শেখা অনেক দীর্ঘ সময় নেয় এবং অনেক কষ্টকরও ছিল। কখনো কখনো বিব্রতকরও হয়ে…