কিশোর-কিশোরীদের জন্য উন্নত স্বাস্থ্যসেবা

লিঙ্গ-সমতাভিত্তিক কৈশোরকালীন স্বাস্থ্য ব্যবস্থা নিশ্চিত করা

Adolescent girl at Bau Bazaar slum in Dhaka
UNICEF/UNI73936/Noorani

চ্যালেঞ্জ

বাংলাদেশে রয়েছে তিন কোটি ৬০ লাখ কিশোর-কিশোরী

বয়ঃসন্ধি এমন একটা পর্যায় যখন একটি শিশু একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ হয়ে ওঠে। এ সময়ই মানুষের মধ্যে প্রজনন ক্ষমতা তৈরী হয়।

এই সময়ে ছেলে-মেয়ের মধ্যে বড় ধরনের শারীরিক ও মানসিক পরিবর্তন আসে, যে কারণে তাদের প্রতি বিশেষ মনোযোগ দিতে হয়। গবেষণায় দেখা গেছে, বয়ঃসন্ধিকালীন সেবা নিশ্চিতের পাশাপাশি তাদের সক্ষমতা বিকাশের সুযোগ করে দেওয়ার মতো নীতি গ্রহণ করা গেলে এই ছেলে-মেয়েরা দারিদ্র্য, বৈষম্য ও সহিংসতার চক্র ভেঙে ফেলতে পারে।

বাংলাদেশে তিন কোটি ৬০ লাখ কিশোর-কিশোরী রয়েছে, যারা এদেশের মোট জনসংখ্যার ২২ শতাংশ। তারপরেও তাদের উপযোগী করে সেবার ব্যবস্থা করার চিন্তা এখনও ততটা গুরুত্ব পায় না।

এ বিষয়ে জরুরি পদক্ষেপ গ্রহণের প্রয়োজনীয়তা দিন দিন বাড়ছে। বাল্য বিয়ের উচ্চ হারের কারণে বাংলাদেশে বয়ঃসন্ধিকালেই অনেক মেয়ে গর্ভধারণ, সহিংসতা ও অপুষ্টির ঝুঁকিতে থাকে। বর্তমানে ২০ থেকে ২৪ বছর বয়সী নারীদের মধ্যে ৫৩ শতাংশেরই বিয়ে হয়েছে ১৮ বছর বয়সের আগে।

এই বয়সের ছেলে-মেয়ে এবং তাদের পরিবারের সদস্যদেরও স্বাস্থ্য সেবা সম্পর্কে সচেতনতার ঘাটতি থাকে। প্রজনন স্বাস্থ্য, পুষ্টি, মানসিক ও সামাজিক বিষয়ে কাউন্সেলিং ইত্যাদির মতো বিষয়ে তারা অবগত নন।

এই অবস্থার কারণে বাংলাদেশে অনেক নবজাতকের মৃত্যু হয়। আবার সন্তান প্রসবের পর মা ও শিশু রোগাক্রান্ত হন। বাংলাদেশে বয়ঃসন্ধিকালের তিনজন মেয়ের মধ্যে একজনই রুগ্ন।আর মেয়েদের ১১ শতাংশই অনেক বেশি রোগা-পাতলা। তাদের অধিকাংশেরই জিংক, আয়োডিন ও আয়রনের মতো অনুপুষ্টির ঘাটতি রয়েছে।

A young mother holds her baby during a parent-teacher meeting
UNICEF/UNI180278/Kiron
ঢাকার করাইল বস্তিতে ইউনিসেফের সহায়তায় পরিচালিত একটি বিদ্যালয়ে অভিভাবক ও শিক্ষকদের একটি সভাায় অংশগ্রহণ করছে অল্প বয়সী দুই সন্তানের জননী সাজেদা (বামে)। বাংলাদেশে কিশোরী গর্ভধারণের হার এখনো বিশ্বে অন্যতম।

বাংলাদেশের কিশোরী মেয়েদের অপুষ্টির পেছনে মূলতঃ দু’টি কারণ - পর্যাপ্ত পুষ্টিকর খাবার না পাওয়া ও অল্প বয়সে গর্ভধারণ

বৈশ্বিকভাবে দেখা গেছে, পরিণত বয়সের মায়ের গর্ভে সন্তানের মৃত্যুর ঘটনার দ্বিগুণ ঘটে ২০ বছরের কম বয়সীদের ক্ষেত্রে।বাংলাদেশে ২০ বছরের কম বয়সী মায়েদের প্রতি ১০০০ জীবিত জন্মে জন্মদানে ৩১ জনের মৃত্যু হয়।

২০ বছরের বেশি বয়সী নারীদের গর্ভধারণ বা সন্তান প্রসবের সময় মৃত্যুর ঘটনার দ্বিগুণ ঘটে ১৫ থেকে ১৯ বছর বয়সীদের ক্ষেত্রে, এই হার পাঁচ গুণ হয় ১৫ বছরের কম বয়সী মেয়েদের ক্ষেত্রে।

সমাধান

বয়ঃসন্ধিকালীন ছেলে-মেয়েদের স্বাস্থ্য সেবার অধিকার নিশ্চিত করতে প্রচারণা, সরকারি নীতিতে এ বিষয়কে অন্তর্ভুক্ত করা, উন্নততর সেবা প্রদানের ব্যবস্থা এবং কমিউনিটির ক্ষমতায়নের মাধ্যমে তাদের জন্য কাজ করছে ইউনিসেফ।

যৌবনে পদার্পণ্যোদতদের জন্য সহায়ক স্বাস্থ্য সেবা এবং বিশেষ কিছু জেলায় সরকারি স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্রে কাউন্সেলিংয়ের ব্যবস্থা করার জন্যও কাজ করা হচ্ছে। এ বিষয়ে বাংলাদেশ সরকারের কৈশোরকালীন স্বাস্থ্য নীতিতে তাদের যৌন ও প্রজনন স্বাস্থ্য, পুষ্টি, তাদের প্রতি সহিংসতা রোধ এবং কিশোরী মায়েদের স্বাস্থ্যের ওপর গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।

কৈশোরবান্ধব স্বাস্থ্য সেবা এ সংক্রান্ত সার্বিক কার্যক্রমের একটি অংশে পুষ্টি, এইচআইভি, পয়ঃনিষ্কাশন, ঋতুকালীন পরিচ্ছন্নতা, জীবন দক্ষতার ওপর ভিত্তি করে শিক্ষা এবং গণমাধ্যমে অংশগ্রহণের মতো বিষয়ও রয়েছে। প্রতিবন্ধী কিশোর-কিশোরীরাও যাতে এসব সেবা পায় সে বিষয়টিও এখানে বিবেচনায় নেওয়া হয়েছে।

দুই পর্যায়ে সহায়তার ওপর গুরুত্ব দেয় ইউনিসেফ। প্রথমত, সুনির্দিষ্ট কিছু বিষয়ে সরকারকে সহায়তা করা হয়। যেমন, নীতি সংশোধন, কৌশল ও পরিকল্পনা প্রণয়ন এবং কর্মসূচি তৈরি।

দ্বিতীয়ত, যেসব জেলায় বাল্য বিয়ের হার অনেক বেশি সেসব জেলার ওপর বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে দেশের মধ্যে কৈশোরবান্ধব স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে পদক্ষেপ গ্রহণ।

স্বাস্থ্য সেবা কর্মীদের সক্ষমতা বৃদ্ধিতে কাজ করে ইউনিসেফ। কিশোর-কিশোরীদের স্বাস্থ্য, উন্নয়ন, সুরক্ষা ও অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে যেসব গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার আছেন তাদের দক্ষতার প্রয়োজন রয়েছে। সেজন্য ইউনিসেফ সেবা দাতা ও সামনের কাতারের কর্মীদের প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকে।

এছাড়া স্কুলে স্যানিটারি ন্যাপকিন সরবরাহ, হাত ধোয়ার জায়গায় সাবান রাখা ও স্বাস্থ্য সেবা নিয়ে প্রচারপত্র ইত্যাদির মতো বিষয়গুলো যাতে ঠিকঠাক মতো হয় সেজন্য সরকার ও অন্যান্য অংশীদারদের সঙ্গে কাজ করে ইউনিসেফ। প্রয়োজনীয় সরঞ্জামগুলো কেনা, বিতরণ এবং তা তদারক করা হচ্ছে কি না সে বিষয়ে কাজ করা হয়।

Adolescent girls make their own sanitary napkins
UNICEF/UN071428/Kiron
ইউনিসেফের সহায়তায় পরিচালিত প্রকল্প ‘সম্পূর্ণা’র আওতায় কিশোরীরা তাদের স্যানিটারি ন্যাপকিন তৈরির কাজে ব্যস্ত।
Adolescent mother receives health counselling at Satkhira
UNICEF/UNI146722/Kiron
যোল বছর বয়সী রোকসানা পাঁচ মাসের অন্তসত্ত্বা। ‍সাতক্ষীরার আশকারপুরের একটি কমিউনিটি ক্লিনিকের সমাজসেবা কর্মীর থেকে পরামর্শ নিচ্ছে।

     

এই বিষয়ে আরও জানতে