ইউনিসেফ বাংলাদেশ প্রতিনিধি

ইউনিসেফ বাংলাদেশের সমস্ত কাজে নেতৃত্ব দেন যিনি

টোমো হোযুমি

টোমো হোযুমি

টোমো হোযুমি ইউনিসেফ বাংলাদেশের নতুন রিপ্রেসেনটেটিভ। একজন জাপানী নাগরিক, তিনি গত ২৯ বছর যাবৎ শিশু ও নারী অধিকারকে এগিয়ে নেয়ার ক্ষেত্রে কাজ করে আসছেন। তিনি ২০১৯-এর মে মাসে জাতিসংঘের এই সংস্থাটির প্রধান হিসাবে যোগদান করেন।

এযাবৎ বাংলাদেশসহ চারটি দেশে তিনি ইউনিসেফের রিপ্রেসেনটেটিভ বা প্রতিনিধি হিসাবে কাজ করেছেন। ইউনিসেফ ভুটান অফিসে তাঁর কাজের সূচনা হয় ১৯৯০ সালে। ১৯৯২ সালে তিনি ভারতের গুজরাট রাজ্যে ফিল্ড অফিসের প্রধান হিসাবে যোগদান করেন। ১৯৯৭ থেকে ১৯৯৯ পর্যন্ত তিনি ওসাকায় সেভ দ্য চিলড্রেন জাপানের ওভারসিস প্রোগ্রাম ইউনিটের প্রধান হিসাবে কাজ করেন।

তিনি আবার ১৯৯৯ সালে ইউনিসেফে প্রত্যাবর্তন করেন এবং ইউনিসেফের টোকিও দপ্তরে ২০০২ পর্যন্ত প্রোগ্রাম অফিসার হিসাবে কাজ করেন। তারপর তিনি ইউনিসেফ ক্যাম্বডিয়াতে ২০০২ থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত সিনিয়র প্রোগ্রাম অফিসার হিসাবে কর্মরত ছিলেন। ২০০৬ সালে তিনি ইউনিসেফ থাইল্যান্ড এর দেশীয় প্রতিনিধি বা রিপ্রেসেনটেটিভ হিসাবে যোগদান করেন। এছাড়াও তিনি ২০১২ থে ২০১৪ সাল পর্যন্ত ফিলিপাইনের এবং ২০১৪ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত নেপালের দেশীয় প্রতিনিধি বা রিপ্রেসেনটেটিভ হিসাবে নিযুক্ত ছিলেন।      

হোযুমি ১৯৮৫ সালে টোকিও-এর সোফিয়া বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আইন বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রী এবং ১৯৮৭ সালে টোকিও বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্র্যাজুয়েট স্কুল অফ ইনটারন্যাশনাল রিলেশন্স থেকে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রী লাভ করেন। ১৯৮৯ সালে তিনি যুক্তরাজ্যের সাসেক্স-এর ইন্সিটিউট অফ ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ থেকে ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজে এম,ফিল ডিগ্রী লাভ করেন।